আজ ১১ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৫শে জুন, ২০২২ ইং

একুশে ফেব্রুয়ারি : সিলেটে র‍্যাব-পুলিশ বিশেষ তৎপর

সিলহট রিপোর্টার :: সিলেটে গত একমাসের ভেতরে ধরা পড়েছে নিষিদ্ধঘোষিত সংগঠনের ১০ সদস্য বা ‘জঙ্গি’। ৩০ জানুয়ারি নগরের আরামবাগ এলাকা থেকে ‘আল্লাহর দলের’ ৯ জঙ্গিকে আটক করে পুলিশের এন্টি টেরোরিজম ইউনিট। এর ১৫ দিন পরেই ১৩ ফেব্রুয়ারি সাগরদীঘিরপাড় মনিপুরীপাড়ার সৈয়দপুরী গলির একটি বাসা থেকে নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠন আনসারুল ইসলাম ও আনসারুল্লাহ বাংলা টিমের এক সদস্যকে আটক করে র‌্যাব। র‌্যাবের ভাষ্যমতে- সিলেটে ‘নাশকতার’ বড় পরিকল্পনা ছিলো ‘জঙ্গি’দের ।

এই অবস্থায় আগামীকাল সারাদেশের ন্যায় সিলেটেও ভাবগাম্ভীর্যপূর্ণভাবে পালিত হবে অমর একুশে ফেব্রুয়ারি ও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস। দিবসটি উপলক্ষ্যে জঙ্গিদের কোনো অপতৎপরতা বা পরিকল্পনা ছিলো কি না, তাদের আর কোনো সদস্য সিলেটে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর নাগালের বাইরে আছে কি না- এই বিষয়গুলো নিয়ে সিলেটের সচেতন মহল খানিকটা উদ্বিগ্ন। তবে দিবসটি নির্বিঘ্নে পালন করতে এবং নগরবাসীর মন থেকে ‘জঙ্গি আতঙ্ক’ দূর করতে সিলেটে র‌্যাব ও পুলিশের পক্ষ থেকে বৃহস্পতিবার (২০ ফেব্রুয়ারি) থেকেই গ্রহণ করা হয়েছে বিশেষ পদক্ষেপ, নিশ্চয়তা দেয়া হচ্ছে নিরাপত্তাব্যবস্থার।

জানা গেছে, মহান একুশে ফেব্রুয়ারি উপলক্ষ্যে ভাষাশহিদদের প্রতি শ্রদ্ধা নিবেদনের আয়োজন ঘিরে সিলেট কেন্দ্রীয় শহিদ মিনার এলাকাসহ শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনের নগরের বিভিন্ন স্থানে আলাদা আলাদা টিমের মাধ্যমে বিশেষ নিরাপত্তাব্যবস্থা রাখবে র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‍্যাব)-৯।

এ বিষয়ে র‌্যাব-৯ এর মিডিয়া অফিসার (অতি. পুলিশ সুপার) মো. সামিউল আলম বৃহস্পতিবার দুপুরে এ প্রতিবেদককে-কে বলেন, বৃহস্পতিবার থেকেই কাজ শুরু করে দিয়েছে র‌্যাব। বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার পুরোদিন নগরজুড়ে চষে বেড়াবে র‌্যাবের নিয়মিত টহল টিম, স্ট্রাইকিং ফোর্স এবং সাদা পোষাকের ইন্টেলিজেন্স বা গোয়েন্দা টিম। এছাড়াও শহিদ মিনার বা ফুল দেয়ার স্থানগুলোতে থাকবে আলাদা টিম। সিলেটে যে কোনো ধরনের নাশকতা ঠেকাতে বা অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে এই বিশেষ টিমগুলো কাজ করবে শুক্রবার রাত পর্যন্ত।

এদিকে, একুশে ফেব্রুয়ারিকে কেন্দ্র করে সিলেট মেট্রোপলিট পুলিশও নিয়েছে বিশেষ উদ্যোগ। নিয়মিত নিরাপত্তা প্রদানকারী দলের পাশাপাশি মাঠে থাকবে তাদের আলাদা বিশেষ টিম। সাদাপোষাকেও থাকবে গোয়েন্দা টিম।

এ বিষয়ে বৃহস্পতিবার এসএমপি’র উপ-পুলিশ কমিশনার (মিডিয়া) জেদান আল মুসা বলেন, শহিদমিনারসহ ফুল দেয়ার জায়গাগুলোতে পুলিশের সংখ্যা বাড়ানো হবে। এছাড়াও শুক্রবার নগরের বন্দরবাজার, জিন্দাবাজার, চৌহাট্টা, আম্বরখানা, মদিনামার্কেট, টিলাগড়, জিতু মিয়ার পয়েন্ট, দক্ষিণ সুমরার মারকাজ পয়েন্ট ও চন্ডিপুলে পুলিশ মোতায়েন থাকবে। তিনি বলেন, শুক্রবার নগরে যানজট নিয়ন্ত্রণে আলাদভাবে কাজ করবে এসএমপি ট্রাফিক বিভাগ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap