আজ [bangla_date], [english_date]

কওমি মাদরাসার আগামী বছরের চূড়ান্ত পরীক্ষা পেছানোর সম্ভাবনা

ডেস্ক রিপোর্টার :: কওমি মাদরাসায় শিক্ষাবর্ষের সময়সীমা বা আগামী বছরের চূড়ান্ত (ফাইনাল) পরীক্ষা পেছানোর পরিকল্পনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের (বেফাক) মহাপরিচালক ও ভারপ্রাপ্ত পরীক্ষা নিয়ন্ত্রক মাওলানা মোহাম্মদ যুবায়ের।

তিনি বলেছেন, মাদরাসা খুলছে, নির্ধারিত সময়ের মধ্যে যদি অধিকাংশ সিলেবাস আমরা শেষ করতে না পারি তবে এক দুই মাস বাড়ানো হতে পারে।

মাওলানা মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, স্বাভাবিকভাবে যেভাবে বছর শেষ হয়, এরপর কিছু সময় লাগতে পারে। আমাদের কিছু শিক্ষক-শিক্ষার্থী আছেন যারা হাফেজ, রমজান মাসে ইমামতি করেন। যার কারণে এই সময়টাতে একটা বিরতি স্বাভাবিকভাবেই চলে আসে। তখন মসজিদের দিকটাই গুরত্ব দিতে হয়। আমরা যদি রমজানের আগে সিলেবাসের অধিকাংশ অংশ শেষ করতে পারি তাহলে পরীক্ষা নেয়া হবে। আর যদি সম্ভব না হয় তবে দুই এক মাস বাড়িয়ে নেয়া হতে পারে।

বিষয়টি কমিটিতে আলোচনা হয়েছে, মুরুব্বিরা বলেছেন, আমরা আগে স্বাভাবিকভাবে শুরু করি দেখি কতোটুকু পারি। যদি ৭৫ শতাংশ সিলেবাস শেষ হয়, তবে আর বাড়ানো হবে না।

তিনি আরো বলেন, মাদরাসায় রমজানের পরপরই শিক্ষাবর্ষ শুরু হয় এবং রমজানের আগের মাসের শিক্ষার্থীদের ফাইনাল পরীক্ষা নেয়া হয়। গত বছর করোনার কারণে বার্ষিক পরীক্ষা হয়নি। যার ফলে উত্তীর্ণ করানো, নতুন শিক্ষার্থী ভর্তি করানো সম্ভব হয়নি। তাই এ বিপর্যয় ঘটেছে।

 

খবরসূত্র : মানবজমিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap