আজ ১০ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৪শে জুন, ২০২২ ইং

সিলেটের মেজরটিলায় বিদেশের আদলে হচ্ছে ওয়াকওয়ে ও লেক

ডেস্ক রিপোর্টার :: সিলেট-তামাবিল সড়কের মেজরটিলা এলাকায় দৃষ্টিনন্দন ও আধুনিক সুবিধা সম্পন্ন ১ কিলোমিটার ওয়াকওয়ে এবং লেক নির্মিত হচ্ছে।

জানা গেছে, সিলেট সদর উপজেলার খাদিমপাড়া ইউনিয়নের সিলেট-তামাবিল সড়কের মেজরটিলা এলাকায় রাস্তার ধার ছিলো রীতিমত ময়লার ভাগাড়। প্লাস্টিক, পলিথিন আর নানা পচনশীল বর্জ্যের দুর্গন্ধে এতদিন এ পথে চলা ছিলো দায়। কিন্তু সিলেট-১ আসনের সংসদ সদস্য ও পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের বিশেষ উদ্যেগে এবার নূরপুর হতে চামেলীভাগের ময়লার ভাগাড় বদলে যাচ্ছে ১ কিলোমিটার দৃষ্টিনন্দন ওয়াকওয়ে এবং লেকে।

গত ২৫ শে মার্চ ৪ নং খাদিমপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের নতুন কমপ্লেক্স ভবনের উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে এ প্রকল্পের কাজ শুরুর ঘোষণা করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

এ বিষয়ে খাদিমপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান অ্যাড. আফছর আহমদ জানান, সিলেট-তামাবিল সড়কের মেজরটিলা এলাকার গুরুত্বপূর্ণ এ সড়কের পাশে এতোদিন ইউনিয়নের ১,২ ও ৪ নং ওয়ার্ডের জনসাধারণ ময়লা আবর্জনা ফেলতেন। ইতিমধ্যে ইউনিয়ন পরিষদ সিসিকের সাথে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে অত্র এলাকার সব ময়লা-আবর্জনা টিলাগড় ডাম্পিং স্টেশনে ফেলতে। এছাড়াও ইউনিয়ন পরিষদের পক্ষ থেকে বেশ কয়েকটি ময়লার গাড়ি দেওয়া হয়েছে প্রতিটি ওয়ার্ডে।

তিনি বলেন, মাননীয় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেনের প্রত্যক্ষ তত্বাবধান ও প্রচেষ্টায় সিলেট-তামাবিল সড়কের মেজরটিলা এলাকার রাস্তা সংলগ্ন ১ কিলোমিটার এলাকা বদলে যাচ্ছে দৃষ্টিনন্দন ওয়াকওয়ে ও লেকে।

এ ওয়াকওয়ে ও লেকের ডিজাইনের সাথে জড়িত প্রতিষ্ঠান “ইনোভা ইন্টেরিয়র এন্ড ইঞ্জিনিয়ারিং বিডি”-এর প্রকৌশলী ফেরদৌস চৌধুরী ও রুবেল আহমেদ জানান, সিলেট প্রবাসী অধ্যুষিত নগরী। নগরীর বহু মানুষ বিলেতসহ মধ্যপ্রাচ্যে বসবাস করেন। আর সেই কথা মাথায় রেখে বিলেতের আলোকে আমাদের এই নান্দনিক ও দৃষ্টিনন্দন ওয়াকওয়ে ডিজাইন করা। যাতে গাছ-গাছালি বেষ্টিত মনোরম পরিবেশে থাকবে হাটা ও বসার সুব্যবস্থা।

তাছাড়া এতে থাকছে সৌরবাতি ও সোডিয়াম বাতির ব্যবস্থা, বিশুদ্ধ পানি, ওয়াইফাই এবং মিনি ক্যান্টিনের ব্যবস্থা। ইতিমধ্যে ওয়াকওয়ে ও লেকের কাজ শুরু হয়েছে। এটি সম্পন্ন হলে পর্যটন নগরী সিলেটের চেহারা আরো বদলে যাবে।

উল্লেখ্য, এ প্রকল্পের সার্বিক ডিজাইন, ল্যান্ডস্কেপিং ও সুপারভিশনের দায়িত্ব পালন করছেন প্রকৌশলী ফেরদৌস আব্বাস চৌধুরী, রুবেল আহমেদ ও রাহি শাহনেওয়াজ।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এ বিভাগের আরো সংবাদ
Share via
Copy link
Powered by Social Snap